মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২,  ১২ মাঘ ১৪২৮,  Tuesday, January 25, 2022


দ্যা বাংলা টাইম

আপডেট : 1 week ago

Thu, Jan 13, 2022 6:54 AM

 

বিমানবন্দরে ফাইভ-জি চালু নিয়ে শঙ্কা

Card image cap

নতুন বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের যাত্রীবাহী ও কার্গো পরিবহনকারী উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোর জোট এয়ারলাইন্স ফর আমেরিকা (এফোরএ) জানায়, ফাইভ-জি সেবা এভিয়েশন শিল্পে কী ঝুঁকি তৈরি করতে পারে তা ঠিকমতো পর্যালোচনা করতে ব্যর্থ হয়েছে ফেডারেল কমিউনিকেশন্স কমিশন (এফসিসি)।  সি-ব্যান্ডের ফাইভ-জি সেবা এভিয়েশন শিল্পে কেমন নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করতে পারে তা বিশ্লেষণে এফসিসিকে আরো সময় নিতে হবে।

প্রধান বিমানবন্দরগুলোর কাছে যদি ফাইভ-জি চালু করা হয় তাহলে ভয়ানক ক্ষতির বিষয়ে সতর্ক করেছেন এয়ারলাইন্স শিল্পের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠনটি।  এফোরএ জানায়, ফ্লাইট বাতিল কিংবা হাজারো ফ্লাইটের রুট পরিবর্তনের ফলে শতকোটি ডলার লোকসান গুনতে পারে উড়োজাহাজ সংস্থাগুলো।  সংগঠনটি জানায়, ফাইভ-জি সেবা চালু হলে লাগার্ডিয়া, কেনেডি ও নিউয়ার্ক-নিউইয়র্ক শহরের তিনটি প্রধান বিমানবন্দরের কার্যক্রমই ক্ষতিগ্রস্ত হবে।  এ ছাড়া শিকাগোর ওহেয়ার, বোস্টনের লোগান, লস অ্যাঞ্জেলেসের ডালাস ফোর্ট ওয়ার্থ ও সানফ্রান্সিসকো বিমানবন্দর ফাইভ-জি সেবা চালুতে ঝুঁকিতে পড়বে।

যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি বিমানবন্দরের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ)।  এ বিমানবন্দরগুলোয় বাফার জোন তৈরি করা হবে।  অর্থাৎ সেখানে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এটিঅ্যান্ডটি ও ভেরাইজন ছয় মাসের জন্য ফাইভ-জি সিগন্যাল নির্দিষ্ট করে দেবে।  যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি বিমানবন্দর এটিঅ্যান্ডটি ও ভেরাইজনের ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের আওতার বাইরে থাকবে বলে জানায় তদারককারী সংস্থাটি।