বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর, ২০২১,  ৬ কার্তিক ১৪২৮,  Thursday, October 21, 2021


দ্যা বাংলা টাইম

আপডেট : 1 week ago

Wed, Oct 13, 2021 7:51 AM

 

বিলুপ্তির পথে কামাড়পাড়া 

Card image cap

ডোমারের গ্রামগঞ্জ থেকে কামাড় পাড়াগুলি বিলুপ্তির পথে।  এক সময় সকাল সন্ধ্যা ফাতিটেনে তাল মিলিয়ে লোহা পিটানো ঠুং ঠাং শব্দে মুখোরিত ছিল।  কয়লা পুড়ে আগুনে লোহা গরম করে কামাড়রা তৈরী করতো দা, কুড়াল, বাসিলা, কোদাল, খুন্তি, বটি, কাঠারী, নিরানী, লাঙ্গলের ফালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস। 

তখন লোহার তৈরী জিনিসের চাহিদা ছিল অতুলনীয়।  কামাড়রা লোহা পিটিয়ে মনের মাধুর্য্য দিয়ে লোহার জিনিসপত্র তৈরী করে বিভিন্ন হাট-বাজারে বিক্রি করতো।  সেই উপার্যনের টাকা দিয়ে চলতো তাঁদের সংসার।  আধুনিকের ছোয়ায় কামাড়দের হাতে লোহার তৈরী নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের চাহিদা কমে গেছে।  তাই অনেক পেশা ছেড়ে অন্য পেশায় যোগ দিয়েছে।

উপজেলার মধ্যে ঐতিহ্যবাহী চিলাহাটি কামাড় পাড়ায় আগেরমত লোহা পিটানো ঠুং ঠাং শব্দ আগের মত আর নেই।  বাপ-দাদার পেশাকে হাতে গোনা কয়েকজন কামার ধরে রেখেছে।

চিলাহাটি কামাড় পাড়ার জতিন কর্মকার বলেন, লোহা ও কয়লার দাম কয়েকগুণ বেড়ে গেছে।  সেই অনুপাতে লোহার তৈরী জিনিস পত্রের দাম বাড়েনী।  যা আয় হয় তা দিয়ে সংসার চালানো কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।  তাই ছেলেকে নিয়ে টুকটাক কাজ কবছি। 

দেবাউ কর্মকার বলেন, বাপ-দাদার পেশা ছেড়ে অন্য পেশায় যেতে পারছিনা।  টাকার অভাবে আধুনিক যন্ত্রপাতি কেনা সম্ভব হচ্ছে না।  পরিবার পরিজন নিয়ে কি করবো তাই ভাবছি।  আমরা কোনো ব্যাংক হতে ঋণ পাই না।  ঋণ পাওয়া গেলে আমাদের জন্য অনেক ভালো হতো।